কিভাবে ফর্সা হয়

মানুষ যুগ যুগ ধরে সৌন্দর্য পিপাসু। সৌন্দর্য নারীর অলংকার। তাই নারীরা সব সময় নিজেকে সুন্দর রাখতে চায়। নারীরা তাদের সৌন্দর্যচর্চায় বিভিন্ন ধরনের প্রসাধনী ব্যবহার করে আসছেন।

যারা সৌন্দর্য সচেতন তারা সৌন্দর্য চর্চায় কখনোই নিজেদের সাথে আপস করেন না। নিজেকে অন্যের কাছে আকর্ষণীয় হিসেবে উপস্থাপন করতে নারীদের সৌন্দর্যের অভাব হয় না কখনোই। তাই নারীদের সৌন্দর্য চর্চায় যুগ যুগ ধরে নানা ধরনের প্রসাধনীর ব্যবহার চলে আসছে।

কিভাবে ফর্সা হয়
কিভাবে ফর্সা হয়

ফর্সা হওয়ার ঘরোয়া পদ্ধতি

গায়ের রং উজ্জ্বল হলেও অনেক সময় বিভিন্ন কারনে সেই উজ্জ্বলতা নিস্তেজ হয়ে যায়। এর কারণ হলো যেমন রোদ, ধুলোবালি, তেমনি যত্নের অভাবে ত্বকের রং নোংরা বা ময়লা হতে পারে। তবে সঠিক যত্ন নিলে মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যেই ফর্সা হওয়া সম্ভব। এতে কোনো বাড়তি খরচ লাগবে না। ঘরে বসেই বিভিন্ন উপকরণ দিয়ে সহজেই ফিরে পেতে পারেন আপনার ত্বকের কাঙ্খিত রং।

 ত্বক ফর্সা করতে টমেটো

টমেটোতে প্রচুর পরিমাণে লাইকোপিন নামক উপাদান থাকে, যা ত্বকের সমস্ত দাগ দূর করে সেই সাথে মৃত কোষের স্তরও দূর করে। ফলে ত্বক উজ্জ্বল ও ফর্সা হতে সময় লাগে না। ১-২ টি টমেটো ব্লেন্ডারের সাথে ১-২ চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। তারপর মিশ্রণটি ভালোভাবে লাগান এবং ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। সময় হলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে।

 ত্বক ফর্সা করতে অ্যালোভেরা ও বাদাম গুড়া

সামান্য অ্যালোভেরা জেল নিয়ে তাতে অল্প পরিমাণ বাদাম গুঁড়ো মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। তারপর মিশ্রণটি মুখে ভালো করে লাগিয়ে অন্তত ১৫-৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। অ্যালোভেরা জেল ত্বক ফর্সা করার পাশাপাশি ত্বকের বিভিন্ন রোগের প্রকোপ কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

ত্বক ফর্সা করতে দই, মধু এবং লেবু

পরিমাণ মতো দইয়ে অল্প পরিমাণে মধু এবং লেবুর রস মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। তারপর পেস্টটি মুখে ১৫ মিনিট আলতো ম্যাসাজ করুন। তারপর মুখ ধুয়ে ফেলুন। মধু ত্বককে ভেতর থেকে সুন্দর করে এবং লেবুর রস ও দইয়ের মিশ্রণে উপস্থিত ভিটামিন-সি ত্বককে উজ্জ্বল ও সাদা করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

একটি লেবু থেকে রস সংগ্রহ করুন এবং এতে ১ চা চামচ চিনি মেশান। তারপর এই মিশ্রণটি মুখে ঘষতে থাকুন যতক্ষণ না চিনি পুরোপুরি ত্বকে মিশে যায়। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ফর্সা ত্বক পাওয়ার জন্য এই ঘরোয়া উপায়টি দারুণ কাজের।

ত্বক ফর্সা করতে কলা

একটি কলার নিয়ে তাতে সমপরিমাণ দুধ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন এবং তা আলতো করে মুখে ঘোসে ঘোসে লাগান। তবে, নিশ্চিত করুন যে পেস্টটি একেবারে সূক্ষ্ম হয়েছে। মনে রাখবেন মিহি হলেই এটা ভালো কাজ করবে।

ত্বক ফর্সা করতে ডাবের পানি

ডাবের জল দিয়ে দিনে দুবার মুখ ধুলে ত্বক ফর্সা হতে সময় লাগে না। শুধু তাই নয়, এটি ত্বকের দাগ দুর করতে ওষুধের মত কাজ করে। আপনার মুখের জন্য বিস্ময়কর কাজ করতে সক্ষম ডাবের পানি।

ত্বক ফর্সা করতে শসা

রোদে পোড়া দাগ কমাতে শসার কিউব ব্যবহার করতে পারেন। প্রথমে একটা শসা ব্লেন্ড করে ফ্রিজের আইস বক্সে জুস করে রাখুন। বাইরে থেকে ফিরে এসে আইস কিউব টি হালকা করে মুখ ম্যাসাজ করুন। এতে ত্বক যেমন সতেজ দেখাবে, তেমনি ত্বক উজ্জ্বলও হবে।

স্ট্রেইট করার সময় চুলে সামান্য তেল ছিটিয়ে দিন। চুলে চকচকে ভাব আসবে।

ব্ল্যাক হেডস সমস্যায় ভুগছেন? এক কাজ করুন, মুখে একটু গরম পানির ভাপ নিন। তারপর কালো ক্লিপ (গোলাকার অংশ) দিয়ে চেপে ব্ল্যাক হেডসের উপর চাপ দিন। নাকে বা চিবুকে জমে থাকা ব্ল্যাকহেডস খুব সহজেই উঠে আসবে।

আরও পড়ুনঃ ত্বক ও চুলের সৌন্দর্যে পদ্ম/শাপলাফুলের উপকারিতা

স্থায়ীভাবে ফর্সা হওয়ার উপায়

ফর্সা হতে কে না চায়! মেয়েরা সবসময় ত্বক ফর্সা সম্পর্কে সচেতন। আজকাল মানুষ গায়ের রঙের পেছনে ছুটছে। সব ধরনের ব্যস্ততার কারণে এখন আর আগের মতো বিউটি ট্রিটমেন্ট করার সময় নেই নারীদের।

ত্বক ফর্সা করার জন্য, মহিলারা আজকাল স্থায়ী ফর্সা করার ক্রিম খুঁজছেন। অতিরিক্ত ব্যস্ততা, মানসিক ও শারীরিক সমস্যা, খাওয়া-দাওয়ার অবহেলায় নারীরা দিন দিন তাদের ত্বকের উজ্জ্বলতা হারাচ্ছে। যেহেতু এখানকার মহিলারা খুব ব্যস্ত। বিউটি ট্রিটমেন্টের জন্য আগের মত আর সময় নেই। তাই ঘরে বসেই ত্বক ফর্সা করার উপায় খুঁজছেন নারীরা।

আর এই সুযোগ কাজে লাগিয় কসমেটিক কোম্পানি গুলো নিয়ে এসেছে ভিবিন্ন ধরনে ক্রিম যা সাময়িক সময়ের জন্য ত্বক ফর্সা করলেও ক্রিম ব্যবহার করা সাথে সাথে প্রায় ত্বকে বিভিন্ন ধরনের চর্ম রোগ দেখা দিচ্ছে।

ত্বক ফর্সা করার জন্য নারীদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে কসমেটিক কোম্পানি গুলো নিয়ে এসেছে নারীদের জন্য বিভিন্ন ধরনের স্কিন লাইটেনিং ফেয়ারনেস ক্রিম, যা আপনার ত্বককে করবে স্থায়ীভাবে সাদা করবে এমন বিজ্ঞাপনে ভরে যাচ্ছে চার দিকে। কিন্ত এগুলো কত টুকু কাজ করে নাকি ত্বকে ক্ষতি করে সে বিষয়ে কোন মাথা ব্যাথা নাই। তারপর  অনেকে আছেন ক্রিম ব্যববহার করবেন তাদের জন্য কিছু না বললেই নয়।

আরও পড়ুনঃ বাংলা নাটক ডাউনলোড

স্থায়ীভাবে ফর্সা হওয়ার ক্রিম

বিউটি ট্রিটমেন্টের পাশা পাশি ফর্সা ত্বক নারীদের পছন্দের তালিকার শীর্ষে রয়েছে। আজকাল, মহিলারা তাদের ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে এবং তাদের স্থায়ী ভাবে সাদা করার জন্য স্থায়ী সাদা করার ক্রিম খুঁজছেন। নারীদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে প্রসাধনী কোম্পানি গুলো নারীদের জন্য বিভিন্ন ধরনের স্থায়ী সাদা করার ক্রিম নিয়ে আসে। যা আপনার ত্বককে করে তুলবে স্থায়ী ভাবে ফর্সা।

যাইহোক, সব ক্রিম সব ধরনের ত্বকের জন্য উপযুক্ত নয়। তাই ফেস ক্রিম কেনার আগে অবশ্যই জেনে নিন এবং বুঝে নিন। প্রশ্ন আসতে পারে, কোন ক্রিম সবচেয়ে ভালো? সেরা ত্বক সাদা করার ক্রিম কোনটি? ইত্যাদি ফেয়ারনেস ক্রিম গুলি বেশির ভাগ মহিলাদের জীবনের সৌন্দর্যের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক স্থায়ী সাদা করার ক্রিম সম্পর্কে:

ইন্টারনেটে ইদানিং কয়েকটি ক্রিমের কথা বেশ শোনা যায় না। যার নাম গুলো চলুন একে একে দেখি নেই।

বি:দ্র: আমরা এই ক্রিম বা কম্পানি গুলোর প্রচার করছি না। বা আমরা বলছি ও না যে এগুলো ১০০% নিরাপদ আপনি নিজের জেনে বুঝে ব্যবহার করবেন।

wow fairness cream

ওয়াও ফেয়ারনেস ক্রিম ভারতীয় কোম্পানি ওয়াও এর একটি পণ্য। তাদের মতে, তাদের পণ্য ক্ষতিকর সালফেট, সিলিকন এবং প্যারাবেনস থেকে মুক্ত।

কার্যকারিতা
ওয়াও ফেয়ারনেস ক্রিম ফেয়ারনেস ক্রিম আপনার ত্বককে মসৃণ করতে সাহায্য করবে।
Wow Fairness Cream আপনার ত্বককে UV রশ্মির ক্ষতিকর প্রভাব থেকে দূরে রাখবে।
আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করবে।
চুলকানি সমস্যা দূর করে ত্বক ফর্সা করতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে।
ক্রিম ব্যবহার করার আগে, আপনাকে অবশ্যই এটি আপনার ত্বকের ধরণের জন্য উপযুক্ত কিনা তা পরীক্ষা করে দেখতে হবে।

Himalaya herbal Clear Complexion

Himalaya herbal Clear Complexion হিমালয়ের একটি পণ্য। কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা মিঃ এম মানাল এবং ১৯৩৪ সাল থেকে তারা স্থায়ী ভাবে ফরসাকারী ক্রিম তৈরীকরে আসছে।

কার্যকারিতা
হিমালয় ভেষজ পরিষ্কার কমপ্লেক্সন ক্রিমটি ব্যবহার করলে আপনার ত্বকে এক ধরন রেডিয়েন্ট গ্লোকল তৈরী হবে।
এই ক্রিমটির মাধ্যমে আপনার ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করাসহ নিচের আরও বেশ কিছু সমস্যার সমাধান করবে বলে তারা দ্বাবি করে।
ক্রিমটি আপনার ত্বক হাইড্রেট করতে সাহায্য করবে।
প্রাকৃতিক ভাবে উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করবে।
ত্বকের বিদ্যমান ডার্ক সার্কেল গুলো দুর করতে ভূমিকা রাখবে।
আপনার ত্বককে পরিষ্কার করতে সাহায্য করবে।
আপনার ত্বককে স্বাভাবিকভাবে উজ্জ্বলতা প্রদান করবে এই ক্রিম।

আমাদের আরও পোষ্ট পড়ুনঃ মৃত বাবাকে নিয়ে স্ট্যাটাস

OLAY White Residence

কোম্পানিটি 1952 সালে দক্ষিণ আফ্রিকার রসায়নবিদ গ্রাহাম ওল্ফ দ্বারা চালু করা হয়েছিল।

কার্যকারিতা
ওলে হোয়াইট রেসিডেন্স ক্রিম আপনার ত্বকে সাদা উজ্জ্বলতা তৈরি করতে সাহায্য করে।
এটি আপনার ত্বকের টোন পরিবর্তনে ভূমিকা রাখে।
এটি বিভিন্ন পদ্ধতি আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে কার্যকর ভূমিকা পালন করবে।
ত্বকের কালো দাগ কমাতে এই ক্রিম কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।
এটি ত্বকের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে
এটি ৪ সপ্তাহের মধ্যে আপনার ত্বককে মুক্তোর মতো সাদা করতে সাহায্য করবে।

03+ Whitening Cream

O3plus কম্পানির ক্রিম হল 03+ Whitening Cream ক্রিম। 2005 সালে, এটি ভারতের এক নম্বর স্কিন কেয়ার ব্র্যান্ড হিসেবে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।

কার্যকারিতা

03+ হোয়াইটনিং ক্রিম স্কিন হোয়াইটনিং ক্রিম সব ধরনের ত্বকের জন্য খুবই কার্যকরী।
এটা দাবি করা হয় যে এই ক্রিম পিগমেন্টেশন প্রদান করে এবং আপনার ত্বককে সূর্যালোকের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে রক্ষা করে।
ক্রিমটি দাবি করে যে এটি আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে ভূমিকা পালন করবে।
এই ক্রিম আপনার ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করতে কার্যকর ভূমিকা পালন করবে।
এই ক্রিমটি প্রতিদিনই ব্যবহার করার জন্য ডে ক্রিম হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন

StBotanica পিওর রেডিয়েন্স অ্যান্টি এজিং এবং ফেস ব্রাইটনিং ক্রিম

সেন্ট বোটানিকা প্রাকৃতিক ভেষজ এবং ত্বকের যত্নের পণ্যগুলির সংমিশ্রণ তৈরি করে। ভারত ছাড়াও, তাদের স্থায়ী সাদা করার ক্রিম এবং অন্যান্য পণ্য আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, সিঙ্গাপুর এবং যুক্তরাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে।

কার্যকারিতা:

বোটানিকা পিওর রেসিডেন্স সাদা করার ক্রিম হিসেবে সুপরিচিত।
এটি আপনার ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করার পাশাপাশি ত্বক ফর্সা করতে ভূমিকা রাখবে।
এতে রয়েছে ভিটামিন এ এবং ভিটামিন সি যা ত্বক উজ্জ্বল করতে ভূমিকা রাখে।
এই ক্রিমটি ত্বককে হাইড্রেট করতে শতভাগ ভূমিকা রাখবে বলে তাড়া দাবি করে।
এটি একটি দীর্ঘস্থায়ী ক্রিম যা ত্বককে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে।
এটি আপনার ত্বককে সূর্যালোক এবং অন্যান্য বিভিন্ন অসুখ থেকে রক্ষা করতে ভূমিকা পালন করে।

Bella Vita Papayablem Anti Blemish

কার্যকারিতা:

Bella Vita Papayablem Anti Blemish হল পিগমেন্টেশন আপনার ত্বকে প্রাণশক্তি দেবে।
Bella Vita Papayablem Anti Blemish কিছু প্রাকৃতিক উপাদান থেকে তৈরি যা শুষ্ক ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে। এবং আপনার ত্বককে রাখে সতেজ।
যেকোনো ধরনের ত্বকের ক্ষতির জন্য এই ক্রিমটি খুবই কার্যকরী।
এই ক্রিম আপনার স্কিল তেল নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী হবে।
এই ক্রিম আপনার ত্বককে সূর্যের ক্ষতি থেকে সম্পূর্ণ সুরক্ষা দেবে।

Garnier Light Complete

১৯০৪ সালে, আলফ্রেড আমুর গার্নিয়ার প্যারিসের ব্লিসে আলফ্রেড আমুর গার্নিয়ার কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেন। গার্নিয়ার প্রাকৃতিক উপাদানের সমন্বয়ে চুল ও ত্বকের যত্নের পণ্য তৈরি করে আসছে।

কার্যকারিতা:

সম্পূর্ণ লেবুর নির্যাস দিয়ে তৈরি এই ক্রিমটি আপনার ত্বকে উজ্জ্বলতা দিতে কার্যকর ভূমিকা পালন করবে।
আপনার ত্বকের কালো দাগ গুলিকে বিদায় জানিয়ে ত্বকের উজ্জ্বলতা গরে তুলতে সাহায্য করবে।
গার্নিয়ার লাইট কমপ্লিটের সূর্যালোকের ক্ষতিকর প্রভাব কমানোর ক্ষমতা রয়েছে।

ক্রিম ব্যবহারে বিশেষ সর্তকতা

আমরা ক্রিম কোম্পানির চাহিদা অনুযায়ী উপরে উল্লিখিত স্থায়ী ত্বক ফর্শাকারী ক্রিম নাম ও গুনাগুন উল্লেক্ষ করেছি। আর, বাংলাদেশে এই ত্বক ফর্শাকারী ক্রিমের নামে অসংখ্য ভেজাল ক্রিম রয়েছে। তাই, সাদা করার ক্রিম কেনার সময় অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে।

আর এই তালিকার বেশিরভাগ ক্রিমই বিদেশি। তাই, বাংলাদেশে অনেক ক্রিম নাও পেতে পারেন। এবং যদি আপনি এটি পান, সর্তকতার সাথে দেখে শুন কিনবেন। আর আমরা কোন ভাবেই এই ক্রিম গুলোর ১০০% নিশ্চয়তা দিচ্ছি না। তবে ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

রুপচর্চা বিভাগের সকল পোস্ট করতে এখানে ক্লিক করুন : রুপচর্চা

শেষ কথা

এই ছিল আজকের স্থায়ীভাবে ফর্সা হওয়ার উপায় গুলো। প্রথিবীর প্রত্যেক মানষেই সুন্দর।তাই সৌন্দর্যচর্চায় ব্যবহৃত এই সকল পেস্ট বা ক্রিম মানুষের সৌন্দর্যকে ফুটিয়ে তুলে এবং সেই সাথে স্থায়ীভাবে ফর্সা করে তোলে। সুন্দরী নারী বা পুরুষদের কদর যুগ যুগ ধরে রয়েছে। ফর্সা ত্বক পাওয়া একমাত্র সৃষ্টিকর্তার দান।

মানুষ নিজেকে সব সময় সুন্দর ও পরিপাটি করে রাখতে চায়। একজন সুন্দর পুরুষ বা সুন্দরী নারী যে কোন অনুষ্ঠান বা আয়োজনের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে থাকে। বহু শতাব্দী ধরে, নারীরা সৌন্দর্য শিল্পে আধিপত্য বিস্তার করে আসছে।

2 thoughts on “কিভাবে ফর্সা হয়”

Leave a Comment